Ovocal dx এর কাজ কি, দাম কত ও খাওয়ার নিয়ম

আমাদের শরীরে অন্যান্য খনিজগুলির চেয়ে বেশি ক্যালসিয়াম রয়েছে। আমাদের বেশিরভাগ ক্যালসিয়াম আমাদের হাড় এবং দাঁতে থাকে। 

আমাদের স্নায়ু, পেশী এবং এনজাইমের মতো শরীরের অন্যান্য কাজের জন্যও আমাদের ক্যালসিয়ামের অনেক প্রয়োজন।
আমাদের দেহে প্রতিদিন ক্যালসিয়ামের ভালো সরবরাহ প্রয়োজন। 

যদি দেহে আমাদের যথেষ্ট ক্যালসিয়াম না থাকে, তাহলে আমাদের শরীর আমাদের হাড় এবং দাঁত থেকে ক্যালসিয়াম নেবে!
এটি গুরুত্বপূর্ণ যে ক্যালসিয়ামের উৎস একটি জীবন্ত জীবের মাধ্যমে আসে। 

কিছু ক্যালসিয়াম সম্পূরক চুনাপাথর থেকে আসে, যা আমাদের শরীরের জন্য শোষণ করা এবং ব্যবহার করা আরও কঠিন। তবে সেরা ক্যালসিয়াম সম্পূরকগুলি কোরাল, এলজি বা ডিমের খোসা থেকে আসে। ovocal dx eggshell দিয়ে তৈরি। আজ আমরা জানবো ovocal Dx এর কাজ দাম কত ও খাওয়ার নিয়ম   সম্পর্কে।


ovocal dx এর generic নাম: Calcium 600mg+ vitamin D 400iu.

প্রস্তুতকারক: Beacon Pharmaceutical limited.


Ovocal dx এর কাজ কি


  1. অস্টিওপোরোসিস এর প্রতিরোধ অস্টিওম্যালাসিয়া
  2. হাইপো-প্যারাথাইরয়েডিজম
  3. অস্টিওজেনেসিস
  4. ovocal-dx ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ
  5. হাড়ের স্বাস্থ্য বজায় রাখা
  6. পেশির কার্যকারিতা বৃদ্ধি
  7. রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি
  8. হার্টের কার্যকারিতা বৃদ্ধি
  9. রিকেটস রোগ
  10. দাঁতের সুগঠন
  11. গর্ভবতী মহিলাদের ক্যালসিয়ামের ঘাটতি পূরণ
  12. শক্তিশালী হাড় গঠন

Ovocal dx এর কাজ কি, দাম কত ও খাওয়ার নিয়ম



বিস্তারিত....

অস্টিওপোরোসিস: অস্টিওপোরোসিস হল একটি রোগ যা হাড় এর দুর্বলতা দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। এই রোগ হওয়ার ফলে হাড় ভেঙে যাওয়ার এবং ঘনত্ব হ্রাসের ঝুঁকি বেশি থাকে।
এটি হাড়গুলিকে ভঙ্গুর করে তুলতে পারে এবং হাড় ভাঙার প্রবণতা তৈরি করতে পারে, এমনকি ছোটখাটো আঘাতেও হাড় ভেঙে যেতে পারে। 

বয়স্ক প্রাপ্তবয়স্কদের মধ্যে অস্টিওপোরোসিস বেশি দেখা যায়, বিশেষ করে পোস্টমেনোপজাল মহিলাদের ক্ষেত্রে বেশি।
তবে এটি যে কারো ক্ষেত্রে হতে পারে। এটিকে প্রায়শই "নীরব রোগ" বলা হয় কারণ ফ্র্যাকচার না হওয়া পর্যন্ত এটি লক্ষণ ছাড়াই অগ্রসর হয়।

অস্টিওম্যালাসিয়া: অস্টিওম্যালাসিয়া হয় সাধারণত হাড়ের খনিজ এর অভাবে, এবং ক্যালসিয়াম ও ফসফেটের অভাবের কারণে হাড় নরম হয়ে যায়। এছাড়াও ভিটামিন ডি-এর অভাবের কারণেও অস্টিওম্যালাসিয়া হয়ে থাকে।
অস্টিওম্যালাসিয়াতে, হাড়ের নরম হওয়ার ফলে ব্যথা, দুর্বলতা এবং ফ্র্যাকচারের ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে। এটি অস্টিওপরোসিস থেকে ভিন্ন, যেখানে হাড় ভঙ্গুর হয়ে যায় এবং ঘনত্ব হারায়।
অস্টিওম্যালাসিয়া প্রায়শই খাদ্যে ভিটামিন ডি-এর অভাব, অপর্যাপ্ত সূর্যের এক্সপোজার (যা শরীরকে ভিটামিন ডি তৈরি করতে সাহায্য করে), বা শরীরের ভিটামিন ডি প্রক্রিয়া ব্যাহত করে।

হাইপো-প্যারাথাইরয়েডিজম: হাইপোপ্যারাথাইরয়েডিজম হল ঘাড়ের মধ্যে অবস্থিত প্যারাথাইরয়েড গ্রন্থি, যা শরীরে ক্যালসিয়াম ও ফসফরাস মাত্রা নিয়ন্ত্রণের জন্য দায়ী, এবং খুব কম প্যারাথাইরয়েড হরমোন (PTH) উৎপন্ন করে। রক্তে ক্যালসিয়াম এবং ফসফরাস এর ভারসাম্য বজায় রাখতে PTH একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
যখন PTH এর ঘাটতি থাকে, তখন এটি রক্তে ক্যালসিয়ামের অস্বাভাবিকভাবে কম মাত্রা এবং ফসফরাসের উচ্চ মাত্রার দিকে নিয়ে যেতে পারে।
 এই ভারসাম্যহীনতা বিভিন্ন উপসর্গের কারণ হতে পারে, যার মধ্যে পেশীতে খিঁচুনি, খিঁচুনি, অসাড়তা হতে পারে। গুরুতর হাইপোপ্যারাথাইরয়েডিজম জীবনের জন্য হুমকি হতে পারে। ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি শরীরে সঠিক ক্যালসিয়ামের মাত্রা বজায় রাখে।

অস্টিওজেনেসিস: অস্টিওজেনেসিস হল হাড় গঠন বা নতুন হাড়ের টিস্যু তৈরির প্রক্রিয়া। এটি একটি জটিল এবং অত্যন্ত নিয়ন্ত্রিত জৈবিক প্রক্রিয়া যা বিকাশ, বৃদ্ধি এবং সারা জীবন হাড় এর মেরামত ও পুনর্নির্মাণের সময় ঘটে। 
অস্টিওজেনেসিস সামগ্রিক কঙ্কালের স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ এবং সারা জীবন হাড়ের শক্তি, গঠন এবং খনিজ ভারসাম্য বজায় রাখতে ভূমিকা পালন করে।

হাড়ের স্বাস্থ্য: শক্তিশালী হাড় তৈরি ও হাড়ের স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য ক্যালসিয়াম অপরিহার্য, যেখানে ভিটামিন ডি শরীরকে ক্যালসিয়াম শোষণ এবং কার্যকরভাবে ব্যবহার করতে সাহায্য করে। একসাথে, তারা হাড়ের স্বাস্থ্যকে ভালো রাখে এবং অস্টিওপরোসিসের মতো অবস্থার প্রতিরোধে সাহায্য করতে পারে।

পেশীর কার্যকারিতা: ক্যালসিয়াম পেশী সংকোচনের সাথে জড়িত, এবং এর অভাবে পেশী ক্র্যাম্প হতে পারে। ভিটামিন ডি পেশীর কাজে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, এবং সুস্থ পেশী বজায় রাখতে সাহায্য করতে পারে।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি : ভিটামিন ডি ইমিউন সিস্টেম এর জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে বলে পরিচিত, এবং এর ঘাটতি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকে দুর্বল করতে পারে। ক্যালসিয়ামের অনেক ইমিউন-নিয়ন্ত্রক কাজ রয়েছে।

হার্টের স্বাস্থ্য: কিছু গবেষণায় বলা হয়েছে যে পর্যাপ্ত ক্যালসিয়াম গ্রহণ না করলে নিম্ন রক্তচাপ এর ঝুঁকি হতে পারে, যা হার্টের স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করতে পারে।

সামগ্রিক স্বাস্থ্য: ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি উভয়ই সামগ্রিক স্বাস্থ্যের জন্য গুরুত্বপূর্ণ, এবং তাদের সংমিশ্রণ উপকারী হতে পারে, বিশেষ করে যারা এই পুষ্টির কম খাদ্য গ্রহণ করেন বা তাদের শোষণকে প্রভাবিত করে।


Ovocal dx এর উপকারিতা

Ovocal dx মূলত ক্যালসিয়াম ৬০০ মিলিগ্রাম ও ভিটামিন ডি ৪০০ আইইউ এর সমতুল্য। Ovocal dx এর উপকারিতা গুলো হলো:

শক্তিশালী হাড় এবং দাঁত বজায় রাখার জন্য ক্যালসিয়াম অত্যন্ত উপকারী। এটি হাড় এর প্রাথমিক খনিজ, এবং ভিটামিন ডি আপনার শরীরকে কার্যকরভাবে ক্যালসিয়াম শোষণ করতে সাহায্য করে।

পর্যাপ্ত ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি গ্রহণ অস্টিওপোরোসিসের ঝুঁকি কমাতে পারে, যা দুর্বল এবং ভঙ্গুর হাড় দ্বারা চিহ্নিত করা হয়।

tab ovocal dx পেশী সংকোচন এবং স্নায়ু সংক্রমণের জন্য অপরিহার্য। এটি আপনার পেশী সঠিকভাবে কাজ করতে সাহায্য করে।

কিছু গবেষণায় বলা হয়েছে যে পর্যাপ্ত ভিটামিন ডি মাত্রা হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতে পারে।

ভিটামিন ডি ইমিউন সিস্টেমে একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে এবং সংক্রমণের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।

ভিটামিন ডি মেজাজের উপর ইতিবাচক প্রভাব ফেলতে পারে এবং বিষণ্নতা মোকাবেলায় সাহায্য করতে পারে এমন কিছু প্রমাণ রয়েছে।

ভিটামিন ডি ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে ।

Ovocal dx side effect

ওভোক্যাল ডি অতিরিক্ত মাত্রায় গ্রহণ করার ফলে যেসব পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দিতে পারে।

  • বমি বমি ভাব
  • বমি
  • ঝিমুনি
  • ক্ষুধামন্দা
  • পেট কামড়ানো
  • মাথা ব্যথা
  • কোষ্ঠকাঠিন্য

বিস্তারিত....

অতিরিক্ত ক্যালসিয়াম গ্রহণ করার ফলে কিডনিতে পাথর গঠনের ঝুঁকি বাড়তে পারে, বিশেষ করে যাদের কিডনিতে পাথর হওয়ার ঝুঁকি রয়েছে তাদের ক্ষেত্রে।

ক্যালসিয়াম উচ্চ মাত্রায় গ্রহণের ফলে কোষ্ঠকাঠিন্য সহ হজম সংক্রান্ত সমস্যা হতে পারে।

ovocal dx bangla অতিরিক্ত গ্রহণের ফলে বমি বমি ভাব, বমি, দুর্বলতা এবং বিভ্রান্তির মতো উপসর্গ সৃষ্টি করতে পারে।

ভিটামিন ডি এর অত্যধিক সেবন, সাধারণত অতিরিক্ত পরিপূরকের মাধ্যমে, ভিটামিন ডি বিষাক্ততার দিকে পরিচালিত করতে পারে, যার ফলে বমি বমি ভাব, বমিভাব, দুর্বলতা এবং কিডনির সমস্যার মতো উপসর্গ দেখা দেয়।

Ovocal dx অতিরিক্ত গ্রহণের ফলে যদি আপনার শরীরে উপরোক্ত পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া দেখা দেয় তাহলে দ্রুত একজন পেশাদার চিকিৎসকের পরামর্শ গ্রহণ করবেন।

Ovocal dx খাওয়ার নিয়ম

Ovocal-dx প্রাপ্তবয়স্কদের ক্ষেত্রে একটি করে দিনে দুইবার সকাল ও রাতে।

Ovocal dx ভরা পেটে খেতে হয়। এক গ্লাস পানির সাথে।

Ovocal dx price in Bangladesh-এর দাম

Ovocal dx এর প্রতি ট্যাবলেটের দাম ১৬ টাকা।
tab Ovocal dx per tablet price 16 taka in Bangladesh.
এক পাতার দাম ১৬০ টাকা। এক পাতায় ১০ টি ট্যাবলেট থাকে।
Ovocal-dx এক বক্সে ৩০টি ট্যাবলেট থাকে যার দাম ৪৮০ টাকা

ঔষধের মিথস্ক্রিয়া:

ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি প্রায়ই হাড় এর স্বাস্থ্যের জন্য একসাথে নেওয়া হয়। যাইহোক, Ovocal dx এর মিথস্ক্রিয়া সম্পর্কে সচেতন হওয়া গুরুত্বপূর্ণ। এখানে কিছু সাধারণ মিথস্ক্রিয়া আছে:

ক্যালসিয়াম এবং কিছু অ্যান্টিবায়োটিক (যেমন, টেট্রাসাইক্লাইনস) বা থাইরয়েডের ওষুধগুলি মিথস্ক্রিয়া করতে পারে, এই ওষুধগুলির শোষণকে হ্রাস করে৷ এগুলিকে কমপক্ষে 2 ঘন্টা পরে নেওয়ার পরামর্শ দেওয়া হয়।

ক্যালসিয়াম আয়রন সাপ্লিমেন্টের শোষণে হস্তক্ষেপ করতে পারে, তাই তাদের আলাদাভাবে নেওয়া উচিত।

অস্টিওপরোসিসের জন্য কিছু ওষুধ, যেমন বিসফসফোনেটস (যেমন, অ্যালেন্ড্রোনেট), খালি পেটে শুধুমাত্র জলের সাথে নেওয়া উচিত এবং ক্যালসিয়াম বা ভিটামিন ডি গ্রহণ করার আগে আপনার কমপক্ষে 30 মিনিট অপেক্ষা করা উচিত।

থিয়াজাইড মূত্রবর্ধক, যেমন হাইড্রোক্লোরোথিয়াজাইড, রক্তে ক্যালসিয়ামের মাত্রা বাড়াতে পারে। আপনি যদি ক্যালসিয়াম এবং থিয়াজাইড মূত্রবর্ধক উভয়ই গ্রহণ করেন তবে আপনার ডাক্তারকে আপনার ক্যালসিয়ামের মাত্রা নিরীক্ষণ করতে হবে।

গর্ভাবস্থায়  Ovocal dx কি খাওয়া যাবে

হ্যাঁ, গর্ভাবস্থায় Ovocal dx তথা ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডি গুরুত্বপূর্ণ। ক্যালসিয়াম আপনার শিশুর হাড় এবং দাঁতের বিকাশের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

ভিটামিন ডি শরীরকে ক্যালসিয়াম শোষণ করতে সাহায্য করে। সঠিক ডোজ নির্ধারণ করতে এবং গর্ভাবস্থায় আপনি আপনার নির্দিষ্ট পুষ্টির চাহিদা পূরণ করছেন কিনা তা নিশ্চিত করতে আপনার চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করা গুরুত্বপূর্ণ।

স্তন্যদানকালে বা বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের Ovocal dx এর ব্যবহার

বুকের দুধ খাওয়ানো মায়েদের জন্য ক্যালসিয়াম এবং ভিটামিন ডিও গুরুত্বপূর্ণ। আপনার নিজের হাড়ের স্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য ক্যালসিয়াম অপরিহার্য, এবং ভিটামিন ডি আপনার শরীরকে ক্যালসিয়াম শোষণ করতে সাহায্য করে।

এই পুষ্টিগুলি প্রায়ই প্রসবোত্তর সময়কালে সুপারিশ করা হয়। সঠিক ডোজ নির্ধারণ করতে এবং বুকের দুধ খাওয়ানোর সময় আপনি আপনার নির্দিষ্ট পুষ্টির চাহিদা পূরণ করছেন কিনা তা নিশ্চিত করতে আপনার চিকিৎসকের সাথে পরামর্শ করুন।

সংরক্ষণ : Ovocal dx ট্যাবলেটগুলি একটি শীতল, শুষ্ক জায়গায় ঘরের তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা উচিত সাধারণত 68-77°F (20-25°C) এর ভিতর তাপমাত্রায়।

তাদের আসল পাত্রে রাখা এবং ট্যাবলেটগুলিকে আর্দ্রতা এবং বাতাস দ্বারা প্রভাবিত না করার জন্য ঢাকনা বা ক্যাপটি শক্তভাবে বন্ধ করা হয়েছে তা নিশ্চিত করা গুরুত্বপূর্ণ।

শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।
Next Post Previous Post